সৌদি আরবে ‘হালাল’ নাইটক্লাব চালু হচ্ছে

প্রকাশিতঃ ১৩ জুন, ২০১৯ আপডেটঃ ৮:১৯ অপরাহ্ণ

নারীদের গাড়ি চালানো, মাঠে বসে নারীদের খেলা দেখা ও সিনেমা হল নির্মাণে অনুমতির পর এবার নাইটক্লাবের বৈধতা দিতে যাচ্ছে সৌদি আরব।

অ্যাডমাইন্ড হসপিটালিটি গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জানিয়েছেন, দুবাই ও বৈরুতের বিখ্যাত ব্র্যান্ড নাইটক্লাব হোয়াইটের কার্যক্রম শুরু হতে যাচ্ছে সৌদি আরবের জেদ্দায়। এতে বিলাসবহুল ক্যাফে এবং লাউঞ্জ থাকবে।

এই হালাল নাইটক্লাবে ওয়াটারফ্রন্ট থাকবে, এর সঙ্গে থাকবে বিশ্বের খ্যাতনামা মিউজিক গ্রুপের পরিবেশনা। ইলেক্ট্রনিক ডান্স মিউজিক, কমার্সিয়াল মিউজিক, আরএনবি এবং হিপহপ মিউজিক উপভোগ করা যাবে এখানে।

এই নাইটক্লাবের লাউঞ্জের একটি অংশে থাকবে ড্যান্স ফ্লোর। নারী পুরুষ সবার জন্যে এই ড্যান্স ফ্লোর উন্মুক্ত থাকবে। হোয়াইটের সব ধরনের সুযোগ সুবিধাই এখানে পাওয়া যাবে।

তবে এই নাইটক্লাবে মদ পাওয়া যাবে না। কারণ সৌদিতে মদ কেনাবেচা অবৈধ। কেউ যদি মদ কেনাবেচা করে তবে তাকে শাস্তি পেতে হয়।

সৌদিতে বেশ কিছুদিন ধরেই সঙ্গীতানুষ্ঠানের হিড়িক পড়েছে। গত এক বছরে সৌদির বিভিন্ন শহরে মারিয়াহ ক্যারে, ইনরিক, দ্য ব্ল্যাক আইড পিস, ডেভিড গুয়েতা, এবং অ্যাকনের মতো বিশ্বের খ্যাতনামা শিল্পী ও মিউজিক গ্রুপের পরিবেশনায় বেশ কিছু সঙ্গীতানুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

এছাড়া গত কয়েক মাসে নারীপুরুষের অংশগ্রহণে বেশ কিছু ক্যাফেতে পার্টির আয়োজন করা হয়। কিন্তু সৌদি সরকার লাইসেন্স না দেয়ায় উদ্যোক্তারা এর ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারেনি। এমনকি গত বছর এ ধরনের একটি মিউজিক্যাল পার্টির আয়োজন করায় একটি ক্যাফে বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সৌদি সরকারের এমন উদ্যোগের কঠোর সমালোচনা করেছেন অনেকে।

এসএইচ-১৩/১৩/১৯ (অনলাইন ডেস্ক, তথ্য সূত্র : দ্যা আরব নিউজ)