ত্বক ভালো রাখতে জেনে নিন লিচুর উপকারিতা

প্রকাশিতঃ ১৪ মে, ২০১৯ আপডেটঃ ১২:০১ অপরাহ্ণ

প্যাচপ্যাচে গরম হলেও গ্রীষ্ম কিন্তু ফলের জন্য বিখ্যাত। আম-লিচুর সময় চলে এসেছে। গরমের অন্যতম ফল লিচু। লিচু শুধু স্বাদে নয়, গুণেও ভরপুর। নানা রোগ প্রতিরোধে, রূপচর্চায় লিচুর গুণ রয়েছে। লিচুর কী কী গুণ রয়েছে তা জেনে নিন।

১। হার্টের পক্ষে খুব উপকারী ফল লিচু। যা হার্টের শিরা উপশিরায় রক্ত চলাচল করাতে সাহায্য করে। এতে হার্টে ব্লোকেজ হওয়ার সম্ভাবনা কিছুটা হলেও দূর হয়।

২। ৭-৮ টা লিচুর রস করে তার মধ্যে ২ চামচ অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি স্ক্যাল্পে লাগান। এক ঘণ্টা রেখে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। তার পরে হালকা শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

৩। ত্বকের ট্যান দূর করতে ৩-৪ টে লিচুর পেস্ট বানিয়ে তার মধ্যে একটি ভিটামিন ই ক্যাপসুল সলিউশন মিশিয়ে নিন। এবার এই মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে রেখে ৩০ মিনিট রাখুন। পরে ঠান্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন।

৪। লিচুর মধ্যে থাকা উপাদান চোখের ছানি পড়া রোধ করে চোখকে ভাল রাখে।

৫। ক্যানসার প্রতিরোধক রয়েছে লিচুতে। তাই এই মরসুমি ফলটি নিয়মিত খাওয়া উচিত।

৬। লিচু ত্বকের কালো দাগ দূর করতেও কাজ দেয়। ৪-৫টি লিচুর পেস্ট বানিয়ে নিন। তার পরে মিশ্রণটি তুলোতে ভিজিয়ে কালো দাগগুলিতে লাগান। ১৫ মিনিট পরে ঠান্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন।

৭। ত্বকে বয়সের ছাপ কমাতে লিচুর ভূমিকা রয়েছে। ৪-৫ টি লিচু ও কলার ১/৪ ভাগ নিয়ে একসঙ্গে পেস্ট বানিয়ে নিন। এবার ত্বকে ১৫-২০ মিনিট ধরে মাসাজ করুন। তারপর ঠাণ্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৮। রোজ ৪-৫ টি লিচু খান। এতেও ত্বকের উপকার হবে। লিচুতে ক্যালোরি নেই, তাই ওজন বাড়ার কোনও সম্ভাবনা নেই।

৯। নিয়মিত লিচু খেলে শরীরে জ্বর বা ইনফেকশনের ভয় থাকে না। লিচু শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

১০। নিয়মিত লিচু খেলে হজমের সমস্যা দূর হয়।