টুইটারের আদ্যপান্ত (ফটো অ্যালবাম)

    প্রকাশিতঃ ৯ আগস্ট, ২০১৬ আপডেটঃ ৮:০৩ অপরাহ্ণ

    দশ বছর আগে শুরু হয়েছিল

    টুইটারের সহ-প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জ্যাক ডর্সি ২০০৬ সালের ২১ মার্চ প্রথম টুইটটি করেন৷ তিনি লিখেছিলেন, ‘জাস্ট সেটিং আপ মাই টুইটার’৷ টুইটারে কেউ লেখা শুরু করলে হয়ত এ কথা দিয়েই শুরু করবেন৷ কিন্তু জ্যাকের টুইটটি রিটুইট হয়েছে অসংখ্যবার৷

    ‘সবচেয়ে সেরা ছবি’

    মার্কিন টেলিভিশন হোস্ট অ্যালেন ডিজেনেরেসের তোলা এই সেলফিটি টুইটারে সবচেয়ে আলোচিত ছবি৷ ২০১৪ সালে অস্কার চলাকালে তোলা ছবিটি তিন মিলিয়নবারের বেশি রিটুইট হয়েছে৷

    ‘ড্যাম, ডানিয়েল’

    এই বুলিটি সাম্প্রতিক সময়ে ভাইরাল হয়েছে৷ অবস্থা এমন যে কিছু মানুষ এখন ‘ড্যাম ডানিয়েল’ ট্যাটুও বানাচ্ছে৷ ক্যালিফোর্নিয়ার দুই টিনএজার, ডানিয়েল লারা (বামে) এবং জোশ হলৎস, ৩০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও প্রকাশ করেন টুইটারে৷ সেখানে জোশ তাঁর বন্ধুর পোশাকের প্রশংসা করতে গিয়ে কয়েকবার ‘ড্যাম, ডানিয়েল’ বলেন৷ সেখান থেকেই বুলিটি ভাইরাল হয়৷

    #ইজিপ্ট

    ‘গুফি’ বিনোদন টুইটারে ভালো করে৷ তবে চলতি ঘটনা নিয়ে অসংখ্য টুইট প্রকাশিত হয় মাইক্রোব্লগিং সাইটটিতে৷ আরব বসন্তের সময় ইংরেজি #ইজিপ্ট হ্যাশট্যাগটি ব্যবহার করে বিভিন্ন তথ্য প্রকাশ করেছেন স্থানীয় মানুষ এবং সাংবাদিকরা৷

    #জেসুইশার্লি

    গতবছরের সাত জানুয়ারি দুই জঙ্গি প্যারিস ফরাসি ম্যাগাজিন ‘শার্লি এব্দোর’ কার্যালয়ে প্রবেশ করে এবং ১১ ব্যক্তিকে হত্যা করে৷ এ সময় আহত হন আরো ১১ জন৷ সেই ঘটনার পর অনেকেই #জেসুইশার্লি হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে শোক প্রকাশ করেছেন৷ সেই ঘটনার প্রথম কয়েক সপ্তাহে পঞ্চাশ লাখ বারের বেশি ব্যবহার হয়েছে হ্যাশট্যাগটি৷

    নারী বিদ্বেষের বিরুদ্ধে রিপোর্ট

    জার্মান টুইটোস্ফিয়ারে ২০১৩ সালে ব্যাপক ব্যবহার হয় #আউফশ্রাই (যার অর্থ হচ্ছে চিৎকার)৷ এই হ্যাশট্যাগটির মাধ্যমে যৌন নিগ্রহ এবং নারী বিদ্বেষী বিভিন্ন ঘটনার কথা প্রকাশ করেন টুইটার ব্যবহারকারীরা৷

    মাঠ থেকে সরাসরি

    ব্রাজিলে ২০১৪ সালে বিশ্বকাপ জয়ের পর বিজয়ী জার্মান দলেই দুই খেলোয়াড় লুকাস পোডোলস্কি এবং বাস্তিয়ান শোয়াইনস্টাইগার মাঠ থেকে এই সেলফিটি পোস্ট করেন৷ ছবিটি ৮০ হাজারবারের বেশি রিটুইট হয়েছে৷

    রাজপরিবারের জন্য সুখবর

    প্রিন্স উইলিয়াম এবং তাঁর স্ত্রী ক্যাথরিনের প্রথম সন্তান জন্ম নেয় ২০১৩ সালের ২২ জুলাই৷ সন্তানের খবর বাকিংহাম প্যালেসের সামনে ঘোষণার প্রথা ভেঙে তারা সেটি প্রথমে জানান টুইটারে৷ জর্জের বোনের জন্মের খবরও জানানো হয়েছে একইভাবে৷

    বারাক ওবামার ‘আরো চার বছর’

    দ্বিতীয় মেয়াদে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর ২০১২ সালের নভেম্বরে এই ছবিটি পোস্ট করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা৷ প্রায় আট লক্ষবার ছবিটি রিটুইট হয়েছে৷

    একজন বিজয়ীর পরামর্শ

    কিছু সফল টুইট কিন্তু সাধারণ মানের ছিল৷ ২০১১ সালে লিডে গাগা টুইটারে লিখেছিলেন, ‘নেভার বি এফরেইড টু ড্রিম’, অর্থাৎ ‘স্বপ্ন দেখতে কখনো ভয় পেও না৷’ লেখাবাহুল্য টুইটারের ইতিহাসে আলোচিত টুইটগুলোর অন্যতম এটি৷